পীরগঞ্জে ভ্যান চালকের বাড়িতে হামলা, আহত- ২  মামলা নিতে গড়িমসি ! 

 পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি :

 

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে ভ্যান চালকের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ঘর বাড়ি ভাঙচুর করা করা হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার ভাকুড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। হামলার ঘটনায় দুইজন গুরুত্বর আহতাবস্থায় দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

 

 

এ ঘটনায় ওই ভ্যান চালকের স্ত্রী লিলি বেগম রবিবার থানায় এজাহার দায়ের করলেও এখন পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ। এতে বিচারহীনতার আশংকায় ভুগছে অসহায় পরিবারটি।

 

 

এলাকাবাসী জানান, ভাকুড়া গ্রামের মশিউর রহমানের কাছ থেকে পাঁচ শতক জমি কিনে ওই জমিতে ঘর বাড়ি নির্মাণ করেছেন ওই ভ্যান চালকের পরিবারটি। একই এলাকার মৃত গোলম রসুলের ছেলে আনছারুলের ওই জমির উপর লোভ পড়ে। এতে শনিবার রাত ১১টায় সময় দিকে লোকজন নিয়ে সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা চালিয়ে ঘর বাড়ি ভাংচুর করতে থাকে।

 

 

 

এ সময় তাদের চিৎকার চেচামেচি শুনে এলাকার লোকজন এগিয়ে এসে তাদের কাজে বাঁধা দিলে ওই এলাকার আব্দুল খালেকের ছেলে খলিল (৪৫) কে মারপিট করে পা ভেঙ্গে দেয় এবং আইনুল হকের ছেলে আজগর আলী ফাটায় আনছারুল বাহিনীর লোকজন।

 

 

 

বর্তমানে তারা দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেকজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ওই ভ্যান চালকের স্ত্রী লিপি বেগম বলেন, আমার দলিল মূলে ক্রয়কৃত জমি থেকে আমাকে বিতাড়িত করার জন্য আনছারুল ও তার লোকজন দীর্ঘদিন ধরে হুমকি দিয়ে আসছিল।

 

 

 

হুমকিতে কাজ না হওয়ায় শনিবার রাত ১১টার দিকে আমার বাড়িতে হামলা করে ভাংচুর চালিয়েছে। এ সময় আমার আত্মচিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসলে তাদেরকেও মারপিট করেছে। ঘর নির্মাণের জন্য লোনের পঞ্চাশ হাজার টাকাও নিয়ে গেছে তারা। ঐদিন রাতেই পুলিশ এসেছিল।

 

 

এ ঘটনায় রবিবার থানায় মামলা দিয়েছি। ওসি স্যার উল্টো আমাকেই নানা কথা শুনিয়েছেন। এখন পর্যন্ত পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয় নি।

 

 

আমি গরীব বলে কি এর বিচার পাবো না ? এ বিষয়ে পীরগঞ্জ থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম পীরগঞ্জ নিউজ এক্সপ্রেসকে   জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *