দুর্ঘটনার নামে মানুষ হত্যা করা হচ্ছে: শওকত মাহমুদ

বার্তা প্রেরকমোহাম্মদ অলিদ সিদ্দিকী তালুকদার এর পক্ষ থেকে মারুফ সরকার  :   বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস-চেয়ারম্যান, সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদ বলেছেন, শাসকেরা প্রায়ই বলেন— সব কিছু ঠিক আছে। অথচ সড়ক-মহাসড়কে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার নামে মানুষ হত্যা করা হচ্ছে। তিনি বলেন, সড়ক দুর্ঘটনার বিষয়ে কোনো গবেষণা প্রতিষ্ঠান, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন কিংবা যাত্রী কল্যাণ সমিতি কথা বললেই শাসকেরা চড়ে গিয়ে বলেন, সব কিছুই অপপ্রচার। সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। অথচ সড়কের মর্মান্তিক দুর্ঘটনার কথা লিখলে সমাপ্তি টানা যাবে না। নিকট অতীতে ঘটে যাওয়া কিছু মর্মান্তিক ঘটনা আমাদের দেশের সড়ক দুর্ঘটনার ভয়াবহ পরিস্থিতিরই পরিচয় বহন করে।শনিবার (৩০ জুলাই) বিকেলে দৈনিক নয়াদেশ এর বিশেষ প্রতিনিধি, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত মোহাম্মদ অলিদ সিদ্দিকী তালুকদারকে দেখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। গত ২৫ জুলাই রাত সাড়ে এগারোটায় রাজধানীর সাইন্সল্যাবের মোড়ে এক সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন অলিদ তালুকদার।শওকত মাহমুদ বলেন, অলিদ তালুকদার একজন সৃজনশীল প্রকাশক। তাঁর মাধ্যমে দেশের স্বনামধন্য প্রখ্যাত বিশিষ্টজনদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ বই প্রকাশক হয়েছে। তিনি বলেন, আমাদের দেশে অন্যতম প্রধান সমস্যা হচ্ছে সড়ক দুর্ঘটনা। স্বাধীনতার ৪৭ বছর পেরিয়ে গেলেও সড়ক ব্যবস্থাপনায় প্রশাসনিক দুর্নীতি, অনিয়ম আর চাঁদাবাজি রয়ে গেছে।

বিশ্বের অন্যান্য দেশে সড়ক দুর্ঘটনা ঘটলেও তা আমাদের দেশের তুলনায় খুবই কম। বাইরের দেশে লাইসেন্স অর্জন করা যত কঠিন, লাইসেন্স টিকিয়ে রাখা তার চেয়ে বেশি কঠিন। অথচ বর্তমান সরকারের এক মন্ত্রী বলেছিলেন— গরু-ছাগল-ভেড়া চিনতে পারলেই ড্রাইভিং লাইসেন্স দেওয়া যায়। একটি দিনও দুর্ঘটনা থেকে বাদ যাচ্ছে না। শাসকেরা বিরোধী দলের রাজনীতিকে যেভাবে মোকাবেলা করে তার ছিটেফোঁটাও যদি সড়কের দিকে দিত, তাহলে বাসের চাপায় মানুষের জীবন বিপন্ন হতো না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *